নাটোরে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৩ লাখ পশু

Sohag Sheikh ১৫ আগস্ট, ২০১৮ দেশের খবর
img

 

নাইমুর রহমান নাটোর প্রতিনিধি : কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নাটোরে চাহিদার তুলনায় বেশি গরু মোটা তাজা করে প্রস্তুত করা হয়েছে। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে অবশিষ্ট গরু দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করা হচ্ছে। খামারি ও ব্যক্তিগতভাবে এসব গরু মোটা তাজা করা হয়েছে। দেশি ও সাধারণ খাবার খাওয়ানো এসব গরু বেশ জনপ্রিয়ও হয়ে উঠেছে। ইতোমধ্যে বেচা কেনাও শুরু হয়েছে। বেপারি বা গরু ব্যবসায়ীরা বাড়ি বাড়ি বা খামার থেকেই গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছে।

জেলা প্রাণিসম্পদ অফিস সূত্রে জানা যায়, নাটোর জেলায় এবার কোরবানির জন্য ১ লাখ ৩২ হাজার পশুর প্রয়োজন হবে। তবে গরু মোটা তাজা করে প্রস্তুত করা হয়েছে ৩ লাখ ৫ হাজার ৫১২টি। এ বছর জেলায় ৫৪৪টি বাণিজ্যিক খামার সহ বাড়ি বাড়ি ব্যক্তি উদ্যোগে এসব দেশি ও বিদেশি জাতের গরু লালন পালন করা হয়েছে। বর্তমানে এসব খামার সহ বিভিন্ন বাড়িতে বিক্রির উপযোগী মজুদ পশুর সংখ্যার মধ্যে ষাঁড় ৫১ হাজার ৫৩৭টি, বলদ ১০ হাজার ৮২৪ টি, গাভী (বকনা) ১৫ হাজার ৭৭৩টি, ছাগল ১ লাখ ৯৫ হাজার ৪১৩টি, ভেড়া ২৯ হাজার ৪৮৯টি ও মহিষ রয়েছে এক হাজার ৪৭৫টি। গত বছর ২ লাখ ৩৭ হাজার ২৯৭টি পশু কোরবানির জন্য লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও সেখানে ১ লাখ ৩২ হাজার কোরবানির পশু জবাই করা হয়েছিল।

তবে এবার গত বছরের তুলনায় ৬৮ হাজার ২১৫ টি বেশি পশু লালন পালন করা হয়েছে। এছাড়াও এবার চাহিদার তুলনায় প্রায় ১ লাখ ৩৪ হাজার পশু বেশি লালন পালন করা হয়েছে।

সদর উপজেলার ডাল সড়ক এলাকার রেকাত আলী বলেন, তিনি গত মৌসুমে ৩০ হাজার গরু লালন পালন করে মোটা তাজা করেছিলেন। এবার এক লাখ দুইটি গরু লালন পালন করেছেন। গরুগুলো বিভিন্ন গ্রাম গঞ্জ ও হাটে ঘুরে ঘুরে কিনেছেন। এসব গরুর অধিকাংশই বিদেশি জাতের। তিনি প্রায় এক বছর ধরে দেশীয় সাধারণ খাবার যেমন খোল, ভূসি, কাঁচা ঘাস খাইয়ে মোটা করেছেন। গরু পালনের জন্য ২০ বিঘা জমিতে ঘাস আবাদ করেছেন। তিনি দাবি করেন কোন ধরনের ওষুধ, স্টেরওয়েড, ফিড বা রাসায়নিক খাদ্য ব্যবহার না করে দেশি খাবার খাইয়ে দেশি বিদেশি সব জাতের গরুকে মোটা তাজা করা সম্ভব।

দিঘাপতিয়া গ্রামের সানোয়ার হোসেন জানান, কোরবানির জন্য দেশি গরুর চাহিদা বেশি হলেও কোন কোন ক্রেতা বিদেশি জাতের গরু পছন্দ করেন। দেশি গরুর পাশাপাশি তিনি প্রায় দুই মাস ঘুরে ঘুরে বিদেশি জাতের গরু যেমন উলু বারের ষাঁড়, নেপালি ও পাকিস্তানি শাহী গরু কিনে লালন পালন করে মোটা করেছেন। কেবল দেশি খাবার খাইয়ে এসব গরু মোটা করেছেন। স্থানীয় প্রাণিসম্পদ বিভাগের পরামর্শে তারা এসব গরুকে দেশি খাবার খাইয়েছেন।

সিংড়া উপজেলার বড় বাড়ি গ্রামের মাজদার হোসেন জানান, তিনি বাড়িতেই চারটি গরু লালন পালন করে বড় করেছেন কোরবানির হাটে বিক্রির জন্য। খোল, ভূষি, ঘাস সহ দেশি খাবার খাইয়ে এসব গরু পালন করেছেন। কোন ওষুধ বা রাসায়নিক কিছুই খাওয়াননি তিনি। দেশি খাবার খাইয়ে মোটা তাজা করার কারণে নাটোরের পশুর কদর বেশি। ঢাকা, চট্রগ্রাম ও কুষ্টিয়া, যশোর সহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে মৌসুর শুরুর অনেক আগে বেপারিরা এসে নাটোর থেকে গরু কিনে নিয়ে যায়।

কুষ্টিয়া থেকে আসা বেপারি রিয়াকত মন্ডল জানান, কুষ্টিয়ার ক্রেতাদের কাছে এখানকার লালন পালন করা গরুর কদর রয়েছে। এছাড়া ঢাকা ও চট্রগ্রামের ক্রেতারাও পছন্দ করেন। শুধু দেশি খাবার খাইয়ে লালন পালন করে গরু এমন নজর কাড়া হয় বলেই এখানকার গরুর যেমন কদর রয়েছে, তেমনি সুনামও আছে। তবে গরুর ন্যায্য দাম নিশ্চিতে ভারত থেকে গরু আমদানির উপর নজরদারীর দাবি করেন তিনি।

নাটোর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. বেলাল হোসেন জানান, নাটোরে এবার চাহিদার বেশি পশু কোরবানির জন্য তৈরি করা হয়েছে। পাঁচ শতাধিক খামারি সহ ব্যক্তিগতভাবে এসব পশু লালন পালন করা হয়েছে শুধু কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে। দেশি-বিদেশি এসব গরুকে দেশি খাবার ও কাঁচা ঘাস খাইয়ে মোটা তাজা করা হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

তবে অবৈধ পন্থায় কেউ যাতে গরু মোটা তাজা করতে না পারে সে জন্য প্রতিটি খামারে নজরদারি রয়েছে বলেও জানান তিনি। গত বছরের মত এবারও চাহিদার তুলনায় বেশি পশু লালন পালন করা হয়েছে। উদ্বৃত্ত গরু ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্রির জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে বেপারিরা নাটোরে এসে খামার থেকে গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছে।

সম্পর্কিত পোস্ট

আমাদের ফেইসবুক

রাশিফল

  • sagittarius

    মেষ

  • sagittarius

    বৃষ

  • sagittarius

    মিথুন

  • sagittarius

    কর্কট

  • sagittarius

    সিংহ

  • sagittarius

    কন্যা

  • sagittarius

    তুলা

  • sagittarius

    বৃশ্চিক

  • sagittarius

    মকর

  • sagittarius

    কুম্ভ

  • sagittarius

    মীন

  • sagittarius

    ধনু

  • মেষ (২১ জানুয়ারী-২৮ ফ্রেরুয়ারী)

    ব্যক্তিগত যোগাযোগ সাফল্যের দিগন্তে পৌঁছে দিতে পারে। দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে পারে। প্রাণের মানুষ প্রাণের পরে পদাঘাত করতে পারে, সতর্ক থাকুন।আপনি সব ব্যথা সয়ে নিতে পারেন এটাও পারবেন।

  • বৃষ (২১ এপ্রিল-২১ মে)

    এসপ্তাহে হাতে যখন বেশ কিছু টাকা পয়সা আসবে তখন টাকাটা একটু কাজে লাগাবার চেষ্টা করুন। অতিথি, বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে মিলন ঘটবে। পরিবারের কেউ অসুস্থ হতে পারে।  মনের লেনাদেনা খারপ যাবেনা। 

  • মিথুন (২২ মে-২১ জুন)

    এসপ্তাহে আপনার দেহ মনের খবর ভাল। মনন চর্চায় নতুন উৎকর্ষে পৌঁছোবেন।

    পরিবার পরিজনের খোঁজ খবর রাখুন। সপ্তাহ জুড়ে ভাও যাবে সময়। 

     

     

  • কর্কট (২২ জুন-২২ জুলাই)

     

    খরচাটা একটু কমান। পূর্বের কোনো কর্মের ফল ভোগ করতে হতে পারে।। স্বল্প দূরত্বে ভ্রমণ হতে পারে। ছোট ভাইবোনের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাবে। প্রয়োজনে তাদের সমর্থন ও সহযোগিতা পাবেন।

  • সিংহ (২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট)

     

    এসপ্তাহে টাকা পয়সা প্রাপ্তি আপনাকে উৎফুল্ল রাখবে। পরিবার বন্দু-বান্ধব উপকারে এগিয়ে আসবে। সাবধানে চলাচল করুন। একটু অসাবধানতার কারণে দুর্ঘটনায় পতিত হতে পারেন। 

  • কন্যা (২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর)

    নতুন কাজে যুক্ত হতে পারেন। পেশাগত দিক ভালো যাবে। কর্মক্ষেত্রে সুনাম ও মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে। সামাজিক অগ্রগতি অব্যাহত থাকবে। আয় উপার্জন বৃদ্ধির যোগ রয়েছে। 

  • তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর)

    ধর্ম কর্মে মন নিবেশ হবে। ভাগ্যোন্নয়ণে প্রবীণ কারও দিকনির্দেশনা লাভ করতে পারেন। কর্মক্ষত্র থাকবে আপনার পক্ষে। বুঝে শুনে চললে ব্যবসা ভাল যাবে। 

  • বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর)

    কাজের চাপ বাড়বে। কাজ ফেলে না রেখে রুটিন অনুসারে করার চেষ্টা করুন।মানসিক চাপ পাত্তা দেবেন না। নিজেকে সংযত রাখুন, অন্যথায় সামাজিক বদনামের শিকার হতে পারেন। আনন্দময় সময় কাটানোরও সুযোগ পেতে পারেন।

  • মকর (২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারি)

    শরীর খুব একটা ভালো নাও যেতে পারে। আহারে বিহারে সাবধানতা অবলম্বন করুন। কোনো ভুল সিদ্ধান্তের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশংকা রয়েছে। কর্মক্ষেত্রে দায় দায়িত্ব বাড়বে, বিতর্ক এড়িয়ে চলুন। 

  • কুম্ভ (২১ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

    দূরদর্শী চিন্তাভাবনা আপনাকে সতেজ ও প্রাণবন্ত রাখবে। গবেষণামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য প্রশংসিত হতে পারেন।  সাময়িকভাবে শরীর কম ভালো যেতে পারে। 

  • মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

    আজ আপনার সেই ইচ্ছেটা  পূর্ণ হতে পারে। প্রেম ও দাম্পত্য বিষয়ে বোঝাপড়া সহজ হবে। কেউ কেউ স্থাবর সম্পত্তিতে বিনিয়োগ করতে পারেন।  ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে।

  • ধনু (২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর)

    দাম্পত্য সম্পর্ক মোটামুটি ভালো যাবে। পারিবারিক সুখশান্তি বজায় থাকবে। কোনো বিষয়ে চুক্তি হতে পারে। কোনো ধরনের প্রতিযোগীতার সম্মুখীন হতে পারেন। বিশেষ কোনো দক্ষতার জন্য প্রশংসিত হতে পারেন।

পাঠক মতামত

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকারের কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি মামাবাড়ির আবদার। তার এ বক্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?
ভোট দিয়েছেন জন
হ্যাঁ
না
মন্তব্য নেই