পঞ্চ গড়ের দেশে ----

Sohag Sheikh ২৫ অক্টোবর, ২০১৮ শিল্প ও সাহিত্য
img

পঞ্চ গড়ের দেশে ----
----------------------
বাংলাদেশের ভৌগলিক সীমানার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের শেষ প্রান্তের জনপদ পঞ্চগড় জেলা। হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত রাজনগড়, মিরগড়, ভিতরগড়, দেবেনগড় ও হোসেনগড় নামক পাঁচটি গড়ের (দূর্গ) সমন্বয়ে গঠিত পঞ্চগড় জেলা। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি পঞ্চগড় জেলার তিন দিকেই ভারতীয় সীমান্ত দ্বারা বেষ্টিত।

কাজী এন্ড কাজী টি এস্টেট (জেমকন লি.) এর আনন্দ ধারা, আনন্দ পাহাড়

তেঁতুলিয়া উপজেলার ৮/১০ কি. মি. দূরে শালবাহান ইউনিয়ের রওশনপুর এলাকায় সুনিবির পরিবেশে গড়ে উঠেছে মনোরম অবকাশ যাপন রিপোর্ট।

এর পাশেই রয়েছে সমতল ভূমিতে বিশাল এলাকা জুড়ে চায়ের বাগান,কাজী গরুর ফার্ম, কাজী ডেইরী ফার্ম, কুত্তার ফার্ম।
লেকের উপর নির্মিত মাল্টিপল ব্রিজ আবাসনগুলোকে সেতু বন্ধনে আবদ্ধ করেছে।

নিঁপূন হাতে তৈরী আবাসনগুলোর চারপাশে রোপিত শোভাবর্ধন গাছগুলো অতিরিক্ত সৌন্দর্য

বাংলা টি ম্যানুফ্যাক্সারিং ইন্ড্রাষ্ট্রিজ লিঃ
তেতুলিয়ার আরেকটি দর্শনীয় স্থান হল বাংলা টি ম্যানুফ্যাক্সারিং লিঃ। এখানে সরাসরি চায়ের কচি পাতা থেকে চা তৈরী করা হচ্ছে।
এখানকার চায়ের ঘ্রাণ খুব মহনীয়।

চা বাগানের কথা--

চা বাগানের কথা উঠলেই মনে হয় সিলেট বা শ্রীমঙ্গলের কথা। উচু নিচু সবুজে ঘেরা টিলা আর পাহাড় তার গাঁয়ে সারি সারি চা গাছ।

কিন্তু সমতল ভূমিতেও যে চা বাগান হতে পারে তা তেঁতুলিয়া না এলে বোঝা যাবে না। দেশের সর্ব উত্তরের উপজেলা তেতুলিয়া গড়ে উঠেছে এমন অর্গানিক চায়ের প্রাণ জুড়ানো সবুজ বাগান।

এ দেশে অর্গানিক ও দার্জিলিং জাতের চায়ের চাষ হয় একমাত্র তেঁতুলিয়ার বাগানগুলোতেই।

ইতিমধ্যে এ চা দেশে এবং দেশের বাইরেও সুনাম অর্জন করেছে।

পঞ্চ গড়ের দেশে - পাথরেই প্রাণ পায় তারা!!!
-----------------------------------------------------------
তেঁতুলিয়ার মহানন্দা নদী থেকে বংশপরম্পরায় নুড়ি পাথর সংগ্রহ করে জীবিকা নির্বাহ করছেন তেতুলিয়ার হাজার পাথর শ্রমিক। দেশের সর্ব উত্তরের এ উপজেলায় অন্য কোনো কাজের তেমন সুযোগ নেই। তাই বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তঘেঁষা এ নদীর পাথরেই জুটছে তাদের ভাগ্যান্নয়।

দার্জিলিংয়ে হিমালয়ের কোল থেকে উৎপন্ন এ নদী বয়ে নিয়ে আসে অসংখ্য নুড়ি পাথর। পানি কমে গেলেই শ্রমিকরা দল বেঁধে পাথর তুলতে নেমে পড়েন এ নদীতে।

প্রতিদিন একজন শ্রমিক গড়ে ৭০০-৮০০ টাকার পাথর সংগ্রহ করেন। প্রতি ১ সিএফটি পাথর বিক্রি হয় ৫০ থেকে ৫৫ টাকায়।
পাথর ভাঙ্গা মহিলা শ্রমিক পান ৩০০ টাকা পুরুষ পান ৩৫০ টাকা।

উত্তোলিত পাথর ভেঙ্গে ৪ ধরনের পাথর পাওয়া যায়।
পাথর উত্তোলনের সিংহভাগ টাকা চলে যায় আড়তদারের হাতে!!!

পঞ্চগড়ের দেশে --- বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট-
------------------------------------------------------------
হিমালয়ের কোল ঘেঁষে বাংলাদেশের সর্বোত্তরের উপজেলা তেঁতুলিয়া। এই উপজেলার ১নং বাংলাবান্ধা ইউনিয়নে অবস্থিত বাংলাদেশ মানচিত্রের সর্বোত্তরের স্থান বাংলাবান্ধা জিরো (০) পয়েন্ট ও বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর।

এই স্থানে মহানন্দা নদীর তীর ও ভারতের সীমান্ত সংলগ্ন প্রায় ১০ একর জমিতে ১৯৯৭ সালে নির্মিত হয় বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর। নেপালের সাথে বাংলাদেশের পণ্য বিনিময়ও সম্পাদিত হয় বাংলাবান্ধা জিরো (০) পয়েন্টে।

তেঁতুলিয়ার ডাক-বাংলা
--------------------------------
বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের উপজেলা তেঁতুলিয়া। এখানকার দর্শনীয় স্থান হল ডাকবাংলো। ডাক-বাংলোটি জেলা পরিষদ কর্তৃক পরিচালিত। এর পাশাপাশি তেঁতুলিয়া উপজেলাপরিষদ কর্তৃক নির্মিত একটি পিকনিক কর্ণার রয়েছে।

ডাকবাংলোর পাশ দিয়ে বয়ে গেছে মহানন্দা নদী।
এটি ভারতের সীমান্ত সংলগ্ন অর্থাৎ নদীর এপার বাংলাদেশ ওপার ভারত। এ নদী থেকে অসংখ্য লোক নূড়ী পাথর সংগ্রহ করে।

 

 

সম্পর্কিত পোস্ট

img
পঞ্চ গড়ের দেশে . . . .
২৫ অক্টোবর, ২০১৮
img
ঘুরে এলাম পঞ্চ . . . .
২৫ অক্টোবর, ২০১৮
img
জাকির সেলিমরে . . . .
১৭ এপ্রিল, ২০১৭

আমাদের ফেইসবুক

রাশিফল

  • sagittarius

    মেষ

  • sagittarius

    বৃষ

  • sagittarius

    মিথুন

  • sagittarius

    কর্কট

  • sagittarius

    সিংহ

  • sagittarius

    কন্যা

  • sagittarius

    তুলা

  • sagittarius

    বৃশ্চিক

  • sagittarius

    মকর

  • sagittarius

    কুম্ভ

  • sagittarius

    মীন

  • sagittarius

    ধনু

  • মেষ (২১ জানুয়ারী-২৮ ফ্রেরুয়ারী)

    ব্যক্তিগত যোগাযোগ সাফল্যের দিগন্তে পৌঁছে দিতে পারে। দীর্ঘ দিনের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে পারে। প্রাণের মানুষ প্রাণের পরে পদাঘাত করতে পারে, সতর্ক থাকুন।আপনি সব ব্যথা সয়ে নিতে পারেন এটাও পারবেন।

  • বৃষ (২১ এপ্রিল-২১ মে)

    এসপ্তাহে হাতে যখন বেশ কিছু টাকা পয়সা আসবে তখন টাকাটা একটু কাজে লাগাবার চেষ্টা করুন। অতিথি, বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে মিলন ঘটবে। পরিবারের কেউ অসুস্থ হতে পারে।  মনের লেনাদেনা খারপ যাবেনা। 

  • মিথুন (২২ মে-২১ জুন)

    এসপ্তাহে আপনার দেহ মনের খবর ভাল। মনন চর্চায় নতুন উৎকর্ষে পৌঁছোবেন।

    পরিবার পরিজনের খোঁজ খবর রাখুন। সপ্তাহ জুড়ে ভাও যাবে সময়। 

     

     

  • কর্কট (২২ জুন-২২ জুলাই)

     

    খরচাটা একটু কমান। পূর্বের কোনো কর্মের ফল ভোগ করতে হতে পারে।। স্বল্প দূরত্বে ভ্রমণ হতে পারে। ছোট ভাইবোনের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাবে। প্রয়োজনে তাদের সমর্থন ও সহযোগিতা পাবেন।

  • সিংহ (২৩ জুলাই-২৩ আগস্ট)

     

    এসপ্তাহে টাকা পয়সা প্রাপ্তি আপনাকে উৎফুল্ল রাখবে। পরিবার বন্দু-বান্ধব উপকারে এগিয়ে আসবে। সাবধানে চলাচল করুন। একটু অসাবধানতার কারণে দুর্ঘটনায় পতিত হতে পারেন। 

  • কন্যা (২৪ আগস্ট-২৩ সেপ্টেম্বর)

    নতুন কাজে যুক্ত হতে পারেন। পেশাগত দিক ভালো যাবে। কর্মক্ষেত্রে সুনাম ও মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে। সামাজিক অগ্রগতি অব্যাহত থাকবে। আয় উপার্জন বৃদ্ধির যোগ রয়েছে। 

  • তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর-২৩ অক্টোবর)

    ধর্ম কর্মে মন নিবেশ হবে। ভাগ্যোন্নয়ণে প্রবীণ কারও দিকনির্দেশনা লাভ করতে পারেন। কর্মক্ষত্র থাকবে আপনার পক্ষে। বুঝে শুনে চললে ব্যবসা ভাল যাবে। 

  • বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর-২২ নভেম্বর)

    কাজের চাপ বাড়বে। কাজ ফেলে না রেখে রুটিন অনুসারে করার চেষ্টা করুন।মানসিক চাপ পাত্তা দেবেন না। নিজেকে সংযত রাখুন, অন্যথায় সামাজিক বদনামের শিকার হতে পারেন। আনন্দময় সময় কাটানোরও সুযোগ পেতে পারেন।

  • মকর (২২ ডিসেম্বর-২০ জানুয়ারি)

    শরীর খুব একটা ভালো নাও যেতে পারে। আহারে বিহারে সাবধানতা অবলম্বন করুন। কোনো ভুল সিদ্ধান্তের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশংকা রয়েছে। কর্মক্ষেত্রে দায় দায়িত্ব বাড়বে, বিতর্ক এড়িয়ে চলুন। 

  • কুম্ভ (২১ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

    দূরদর্শী চিন্তাভাবনা আপনাকে সতেজ ও প্রাণবন্ত রাখবে। গবেষণামূলক কর্মকাণ্ডের জন্য প্রশংসিত হতে পারেন।  সাময়িকভাবে শরীর কম ভালো যেতে পারে। 

  • মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

    আজ আপনার সেই ইচ্ছেটা  পূর্ণ হতে পারে। প্রেম ও দাম্পত্য বিষয়ে বোঝাপড়া সহজ হবে। কেউ কেউ স্থাবর সম্পত্তিতে বিনিয়োগ করতে পারেন।  ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে।

  • ধনু (২৩ নভেম্বর-২১ ডিসেম্বর)

    দাম্পত্য সম্পর্ক মোটামুটি ভালো যাবে। পারিবারিক সুখশান্তি বজায় থাকবে। কোনো বিষয়ে চুক্তি হতে পারে। কোনো ধরনের প্রতিযোগীতার সম্মুখীন হতে পারেন। বিশেষ কোনো দক্ষতার জন্য প্রশংসিত হতে পারেন।

পাঠক মতামত

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকারের কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি মামাবাড়ির আবদার। তার এ বক্তব্যের সঙ্গে আপনি কি একমত?
ভোট দিয়েছেন জন
হ্যাঁ
না
মন্তব্য নেই